পঞ্চগড়ে উন্নত চা ও দক্ষ চাষি তৈরিতে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল

Jun 20, 2021 (0) comment

“উন্নত জ্ঞান উন্নত চা” শ্লোগানকে সামনে রেখে “ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল” এর ব্যানারে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক “বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চা আবাদী ব্যবস্থাপনা” শীর্ষচূড়া দিনব্যাপী হাতেকলমে প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পঞ্চগড়ে উন্নত চা ও দক্ষ চা চাষি তৈরিতে চা বাংলাদেশ বোর্ডের উদ্যোগে অদ্যক্ষ চা চাষিদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে বাংলাদেশ চা র্বোড র্কতৃক বাস্তবায়নাধীন “এক্সটেনশন অব স্মল হোল্ডিং টি কাল্টিভেশন ইন র্নদান বাংলাদেশ” প্রকল্পের আওতায় পরিচালিত হচ্ছে এই ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) পঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার শালবাহান ইউনিয়নের লোহাকাচি গ্রামে ময়নাগুড়ি চা বাগানে ক্ষুদ্র চা চাষিদের নিয়ে “উন্নত জ্ঞান উন্নত চা” শ্লোগানকে সামনে রেখে “ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল” এর ব্যানারে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণর্পূবক “বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চা আবাদী ব্যবস্থাপনা” র্শীষক দিনব্যাপী হাতেকলমে এ প্রশিক্ষণ র্কমশালার অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত প্রশিক্ষণ র্কমশালায় পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার শালবাহান ইউনিয়নের ৬৮ জন ক্ষুদ্র চা চাষি অংশগ্রহণ করেন। উক্ত কর্মশালায় রির্সোস পার্সন হিসাবে বক্তব্য রাখেন পঞ্চগড়স্থ বাংলাদেশ চা বোর্ডের উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও নর্দার্ন বাংলাদেশ প্রকল্পের পরিচালক ড. মোহাম্মদ শামীম আল মামুন, উন্নয়ন কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ আমির হোসেন ও সহকারী খামার তত্ত্বাবধায়ক মোহাম্মদ ছায়েদুল হক।

দিনব্যাপি কর্মশালায় বক্তাগণ চায়ের জাত নির্বাচন, চারা রোপন, প্লাকিং, টিপিং, প্রুনিং, সার প্রয়োগ, পোকামাকড় ও রোগবালাই দমন বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন ও কর্মশালা শেষে ক্ষুদ্রায়তন চা বাগানে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন।

প্রশিক্ষণে কৃষকের দোরগোড়ায় হাতের মোঠোয় সহজে সেবা পেতে চাষিদের ‘দুটি পাতা একটি কুঁড়ি’ মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার শিখানো হয়। কর্মশালার রির্সোস পারসনগণ তাঁদের বক্তব্যে উত্তরাঞ্চলের চায়ের উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি চায়ের গুণগতমান উন্নয়নে বিভিন্ন বিষয়ের উপর আলোকপাত করেন। প্রশিক্ষণ শেষে মূল্যায়নের মাধ্যমে ক্ষুদ্র চা চাষিদের মধ্য থেকে সেরা প্রশিক্ষর্ণাথী হিসেবে আব্দুল মোতালেবকে নির্বাচন করা হয় ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়; যিনি পরর্বতীতে উক্ত গ্রামে ‘ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল’ এর মাস্টার ট্রেইনার হিসেবে অন্য ক্ষুদ্র চা চাষিদের প্রশিক্ষণসহ নানাবিধ পরার্মশ প্রদান করবেন।

উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশ চা র্বোডের র্বতমান চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোঃ জহিরুল ইসলাম এনডিসি, পিএসসি এর পরিকল্পনা ও র্নিদেশনায় বিগত ২০ অক্টোবর ২০২০ খ্রি. তারিখ হতে ক্ষুদ্র র্পযায়ে চা চাষিদের দোরগোড়ায় প্রশিক্ষণ সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে “ক্যামেলিয়া
খোলা আকাশ স্কুল” মডেলে মাঠ র্পযায়ে ইউনিয়নভিত্তিক এ ধরনের প্রশিক্ষণ র্কমশালার আয়োজন করা হয়। উক্ত প্রশিক্ষণ র্কমশালার মাধ্যমে উত্তরবঙ্গের ক্ষুদ্র পর্যায়ের চাষিরা সঠিক উপায়ে চায়ের পাতা চয়ন, সার প্রয়োগ ও পোকামাকড়-রোগাবালাই দমনে সক্ষম হবে ও তাঁদের জ্ঞানের পরিধি বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করেন সংশ্লিষ্টরা। বাংলাদেশ চা বোর্ডের ভিন্নধর্মী ছাদ ও দেয়াল বিহীন “ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল” উদ্যোগের/র্কমসূচীর আওতায় উত্তরাঞ্চলে পাঁচ জেলায় এ র্পযন্ত ৩৯টি হাতেকলমে প্রশিক্ষণ র্কমশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং প্রতি সপ্তাহেই ইউনিয়ন পর্যায়ে সেক্টর/সাব-সেক্টরে ভাগ করে ও ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুলের এ ধরণের প্রশিক্ষণ র্কমশালা অব্যাহত থাকবে বলে চা র্বোড সূত্রে জানা যায়।

ইতোমধ্যে ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল নামে স্বতন্ত্র একটি ওয়েবসাইটও চালু করেছে বাংলাদেশ চা বোর্ড। এতে সমতলে ক্ষুদ্র চা চাষিগণ ভীষণ উপকৃত হচ্ছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

সূত্রঃ https://desherpotro.com/

Comment (0)

Leave a Comments